20.1 C
Rangpur City
Tuesday, January 31, 2023

রেড অ্যালার্টেও আদালত চত্বরে নেই বাড়তি নিরাপত্তা

-- বিজ্ঞাপন --

ঢাকার আদালত এলাকায় পুলিশের থেকে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার পর সারা দেশে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। এরমধ্যে দেশের সব আদালতে নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। তবে কুড়িগ্রামের আদালতপাড়ায় বাড়তি কোনও নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখা যায়নি। সোমবার (২১ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত জেলা জজ আদালতের মূল ফটক বন্ধ রাখা ছাড়া নিরাপত্তা নিয়ে আরও কোনও বাড়তি তৎপরতা চোখে পড়েনি। এমনকি ফটকের গার্ডরুমটিও ছিল নিরাপত্তারক্ষী শূন্য।

বেলা ১১টার দিকে কুড়িগ্রাম জেলা ও দায়ড়া জজ আদালতে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে মূল ফটক লাগিয়ে ছোট পকেট গেট দিয়ে লোকজনের চলাফেরার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। তবে ফটকের গার্ড রুমে কোনও নিরাপত্তা রক্ষীকে দেখা যায়নি। বিচারপ্রার্থীসহ সাধারণ লোকজনের অবাধ যাতায়াত ছিল।

-- বিজ্ঞাপন --

আদালতের মূল ভবনের প্রবেশদ্বার, বারান্দায় মানুষের অবাধ চলাচল থাকলেও বাড়তি কোনও নিরাপত্তারক্ষী কিংবা পুলিশ সদস্য চোখে পড়েনি। এজলাসগুলোর সামনে বিচারপ্রার্থী ও সাধারণ মানুষদের জটলা ছিল সাধারণ দিনের মতোই।

এছাড়া আদালত চত্বরে ফেরিওয়ালা ও ভ্রাম্যমাণ দোকানদারদের তৎপরতাও ছিল স্বাভাবিক দিনের মতোই। মূল ফটকের ভেতরে বসে এসব দোকানে বিভিন্ন মালামালের পসরা সাজিয়ে থাকতে বসে থাকতে দেখা গেছে তাদের। 

-- বিজ্ঞাপন --

কুড়িগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল আদালত ভবনেও বাড়তি কোনও নিরাপত্তা চোখে পড়েনি। সেখানকার মূল ফটকের গার্ডরুমও ছিল নিরাপত্তারক্ষী শূন্য। ভবনেও বাড়তি কোনও নিরাপত্ত ব্যবস্থা দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কুড়িগ্রাম জেলা জজ আদালতের নাজির মো. ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘বাড়তি নিরাপত্তার জন্য সোমবার সকালে পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা হয়েছে। অতিরিক্ত ফোর্স চেয়ে পুলিশ সুপার বরাবর চিঠি দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া আদালতে প্রবেশের মূল ফটক বন্ধ রেখে আলাদা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।’

-- বিজ্ঞাপন --

তবে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত আদালত চত্বরে বাড়তি কোনও নিরাপত্তা কিংবা নিরাপত্তা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য চোখে পড়েনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার আল আসাদ মো. মাহফুজুল ইসলামের মোবাইলফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। 

পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমীনের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘পুলিশ সুপার নিজেই সকালে আদালতে গিয়ে সেখানে নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকা নিয়মিত সদস্যদের সতর্ক থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন। তাদের তৎপরতা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়াও আমাদের গোয়েন্দা তৎপরতা ও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, রবিবার ঢাকার জজ আদালত এলাকা থেকে আনসার আল ইসলামের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে পুলিশের থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় তাদের সহযোগীরা। এই দুই জনই ২০১৫ সালে বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় এবং জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত। সংশ্লিষ্ট আদালত সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ছিনিয়ে নেওয়া দুই জঙ্গির মধ্যে একজন মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান (২৪)। সে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।  অপর জন আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব (৩৪)। সে লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ভেটশ্বর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,602FollowersFollow
854SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles