20.8 C
Rangpur City
Monday, February 6, 2023

দ্রব্যেমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নাকাল মানুষ, দাম বেশি নেওয়া তিন প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

-- বিজ্ঞাপন --


দ্রব্যেমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নাকাল মানুষ। তবুও থামছে না অসাধু ব্যবসায়ীদের লালসা। নানা কৌশলে ক্রেতা সাধারণের কাছ পণ্যের তারা বেশি দাম নিচ্ছেন। অতিরিক্ত দাম নেওয়ার অভিযোগে মাঝে মধ্যে অভিযান হলেও স্বস্তি ফিরছে না জনমনে। তবে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বলছেন, অসাধু ব্যবসায়ীদের লাগাম টেনে ধরতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে রংপুর মহানগরীতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের
রংপুরের সহকারী পরিচালক আফসানা পারভীন।  

-- বিজ্ঞাপন --

এসময় ক্রয়কৃত মালামালের ভাউচার সংরক্ষণ না করা, সঠিক মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা ও ক্রেতা সাধারণের কাছে দাম বেশি নেওয়ার অভিযোগে তিনটি প্রতিষ্ঠানে জরিমানা করা হয়। প্রতিষ্ঠানগুলো নবাবগঞ্জ বাজারের সোহরাব ট্রেডার্স, মিনি মার্কেটের হালিম অ্যান্ড সন্স ও সাকলায়েন ট্রেডার্স। প্রতিষ্ঠানগুলোকে যথাক্রমে ৮ হাজার, ৫ হাজার ও ৬ হাজারসহ মোট ১৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অভিযানের সময় নবাবগঞ্জ বাজারে কথা হয় নগরীর সেনপাড়া এলাকার মেজবাহুল হিমেলের সঙ্গে। এ সময় তিনি বলেন, আমরা তো ব্যবসায়ীদের কাছে জিম্মি। তারা ইচ্ছে অনুযায়ী জিনিসের দাম বাড়াচ্ছে। ক্রেতাদের কোনো গুরুত্বই দেন না। আমাদের মতো মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজনের বাজার করতে এলে দিশে হারিয়ে ফেলি।

-- বিজ্ঞাপন --

সেখানে কথা হয় আরেক ক্রেতা বাবুল আকতারের সঙ্গে। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, ভোক্তার লোকজন অভিযান করছে, জরিমানা করে তারা চলে যাবে। কাল সেই জরিমানার টাকা দোকনদারই আমাদের ওপর কাছে ফের বেশি দাম ধরবেন। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে একটা স্থায়ী সমাধান হওয়া প্রয়োজন।  

ওই বাজারের ব্যবসায়ী নাম না প্রকাশ করার শর্তে বলেন, আমরা ইচ্ছে করেই বেশি দামে পণ্য বিক্রি করি না। এখন সব কিছুর দাম বাড়তি। যেটা বেশি দাম দিয়ে কিনতেছি, সেটাই বেশি দামে বিক্রি করছি। তাই ক্রেতার মনে হতেই পারে আমরা বেশি দাম নিচ্ছি। 

-- বিজ্ঞাপন --

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রংপুরের সহকারী পরিচালক আফসানা পারভীন বলেন, ভোক্তাদের অধিকার যাতে ক্ষুণ্ণ না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে আমরা মাঠে কাজ করছি। ক্রেতাদের কাছে দাম বেশি নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। যথাযথভাবে ভাউচার সংরক্ষণ না করা ও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করার অপরাধে নবাবগঞ্জ বাজারে অবস্থিত সোহরাব ট্রেডার্সকে ৮ হাজার, মিনি মার্কেটে অবস্থিত হালিম অ্যান্ড সন্সকে ৫ হাজার এবং সাকলায়েন ট্রেডার্সকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাদের সর্তক করা হয়েছে যাতে আর এ ধরনের ভুল না করেন।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,600FollowersFollow
869SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles