1. firojinfo2017@gmail.com : drbadmin :
  2. istiyakshajib@gmail.com : Istiyak Shajib : Istiyak Shajib
  3. jfjoy24@gmail.com : J F Joy : J F Joy
  4. obaisskhan@gmail.com : murshid :
  5. shariermim@gmail.com : Sharier Mim : Sharier Mim
  6. tanbirnews@gmail.com : Tanvir Hossain : Tanvir Hossain
বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:১১ অপরাহ্ন

Rangpur press

চাল আত্মসাতের প্রমাণ মিললেও ইউপি চেয়ারম্যানকে অব্যাহতির সুপারিশ দুদকের

সংবাদকর্মীর নাম
  • প্রকাশ কাল: শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৭ বার পঠিত

প্রকল্পের চাল আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়ার পরও ঠাকুরগাঁওয়ের এক ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৫ জনকে মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভ ও আলোচনা সমালোচনা ঝড় উঠেছে।

মামলার অভিযোগ পত্র থেকে জানা যায়, সদর উপজেলার ঢোলারহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সীমান্ত কুমার বর্মন (নির্মল), সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. গোলাম কিবরিয়া, সদর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিপ্লব কুমার সিংহ রায়, গড়েয়া হাট খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাঈদুল ইসলাম, সদর খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, মো. সাহাব উদ্দীন ও শিবগঞ্জ খাদ্য গুদামের এস.এম গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে অস্থিত্বহীন নামসর্বস্ব ৫টি প্রতিষ্ঠানের নামে জালিয়াতিভাবে কাগজপত্র তৈরি ও ব্যবহার করে অবৈধভাবে ৬ মেট্রিক টন চাল আত্মসাৎ করে। যার মূল্য ২ লাখ ৩৪ হাজার ৬০৮ টাকা। পরে আত্মসাৎ করার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় দিনাজপুর এর সহকারী পরিচালক মো. আহসানুল কবীর পলাশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মালার ধারা দঃবিঃ ৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/৪০৯/১০৯ এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২)। ওই মামলায় এ মাসের ৮ ডিসেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশন, দিনাজপুরের উপ-সহকারী পরিচালক মো. সাইদুর রহমান চুড়ান্ত প্রতিবেদন সত্য (এফআরটি) বিজ্ঞ আদালতে দাখিল করেন।

কিন্তু আদালতে দাখিলকৃত প্রতিবেদনে তদন্তকারী কর্মকর্তা সাইদুর রহমান দুরকম বক্তব্য উল্ল্যেখ করেন। প্রতিবেদনে তিনি বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে প্রকল্প জালিয়াতির প্রমাণ পেয়েছেন।

অন্যদিকে আবার আসামিদের এ মামলা থেকে অব্যাহতি প্রার্থনাও করেছেন। একই প্রতিবেদনে দুরকম বক্তব্য থাকায় এলাকায় ক্ষোভ ও আলোচনা সমালোচনা ঝড় উঠেছে।

এদিকে এফআরটি দাখিলের খবর পেয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে কয়েকজন ব্যক্তি চলতি মাসের ২৩ তারিখে মামলাটি পুনরায় সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবী জানিয়ে ঢাকা র্দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যানের কাছে ডাকযোগে লিখিত আবেদন প্রেরণ করেন।

এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগে বলা হয়, তদন্তকারি কর্মকর্তা যোগসাজসে মামলায় প্রতিবেদনে আসামীদেরকে আবার দুর্নীতি করার সাহস, সুযোগ ও উৎসাহিত করা হয়েছে। অবিলম্বে পুনরায় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

খবর:পূর্বপশ্চিমবিডি

Baobao

এই সংবাদ ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ধরনের আরও সংবাদ দেখুন

Baobao Cupon Banner

© All rights reserved © 2020 drbtv.live