27 C
Rangpur City
Wednesday, May 25, 2022
Royalti ad

বদরগঞ্জ যমুনেশ্বরী নদীর তীরে বান্নির মেলা

-- বিজ্ঞাপন --Royalti ad

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের শেখেরহাটে যমুনেশ্বরী নদীর তীরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমীর স্নান ও বাননী মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

স্নান উপলক্ষে যমুনেশ্বরী নদীর তীরে লাখো পুণ্যার্থীর ঢল নামে। শনিবার (৯ এপ্রিল) উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের শেখেরহাটে এলাকায় সকাল ৭টা ৩৫ মিনিট ৩ সেকেন্ড থেকে শুরু হয়ে ১০টা ৩ মিনিট ৫১ সেকেন্ড পর্যন্ত উত্তম লগ্ন ধার্য করে এ স্নান উৎসব উদযাপিত হয়।

-- বিজ্ঞাপন --

শনিবার সকাল থেকেই ‘হে মহা ভাগ যমুনেশ্বরীতে, হে লৌহিত্য, তুমি আমার পাপ হরণ করো’ মন্ত্র উচ্চারণ করে ব্রহ্মার কাছে কৃপা চেয়ে স্নান উৎসবে মেতে ওঠেন পুণ্যার্থীরা। প্রায় ১০০শ’ বছর ধরে প্রতি বছর চৈত্র মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে এ পুণ্যস্নান সম্পন্ন করেন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা। বদরগঞ্জ শেখেরহাট এ স্থানটিকে তারা তীর্থস্থান হিসেবে বিবেচনা করেন। হিন্দু ধর্ম মতে, এটি একটি পুণ্য কর্ম এবং এই স্নানের মাধ্যমে তাদের পাপমোচন ঘটে।

স্নান উপলক্ষে যমুনেশ্বরীর তীরে প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে পুণ্যার্থীদের বিচরণ হয়। উপজেলা প্রশাসন ও স্নান উৎসব কমিটির দেওয়া তথ্য মতে, এবারে লক্ষাধিক পুণ্যার্থীর আগমন ঘটেছে। লগ্ন অনুযায়ী নিজেদের সুবিধাজনক সময়ে ধর্মীয় এ স্নান সেরে নেন আগতরা। স্নান উৎসব নির্বিঘ্ন করতে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নেয় উপজেলা প্রশাসন। পাশাপাশি স্নান ও মেলা উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। দূর-দূরান্ত থেকে আসা পুণ্যার্থীদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ ও আনসার সদস্য মোতায়েন করাসহ ঝুঁকিপূর্ণ স্থানগুলোতে পুলিশি পাহারার ব্যবস্থা করা হয়।

-- বিজ্ঞাপন --

স্নানে অংশ নেওয়া তারাগঞ্জ থেকে আসা তরুণী কান্ত বলেন, ‘এ নদে স্নান করার মাধ্যমে আমরা জীবনের পাপ থেকে পরিত্রাণ নিয়ে পবিত্রতা অর্জন করি। স্রষ্টা এর মাধ্যমে আমাদের অতীতের পাপ থেকে মুক্ত করবেন, এই বিশ্বাস থেকে এসেছি। এছাড়াও লাখো মানুষের সমাগমে যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তাতে কিছুটা হলেও শৃঙ্খলা বজায় ছিল। তবে অষ্টমীর স্নানের জন্য স্থায়ী ও নির্দিষ্ট ব্যবস্থা হলে আমাদের জন্য ভালো হয়।’

সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে স্নান উৎসব কমিটির সদস্যরা জানান, দেশ-বিদেশ থেকে দেড় লাখেরও বেশি পুণ্যার্থী স্নান উৎসবে যোগ দেন। পরিবেশ অনুকূলে থাকায় আগের তুলনায় এ বছর পুণ্যার্থীর উপস্থিতি অনেক বেশি হয়েছে।

-- বিজ্ঞাপন --Bicon Icon

দিনব্যাপী মেলাতে শতাধিক দোকানের পসরা সাজিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা। মেলায় বিভিন্ন সামগ্রী খাবার হোটেল, কসমেটিক, রসুন, পিয়াজ, আদা, পুতুল নাগরদোলা বেলুন ফুটানো সহ ইত্যাদি মাটির তৈরি খেলনা ছাড়াও গৃহস্থলির সামগ্রীরও অনেক জিনিস ওঠেছে। বাজারে বিভিন্ন জিনিসপত্রের দাম বেশি হওয়াতে মেলায় অনেকে এসেছেন কম দামে কেনার জন্য।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, দিনব্যাপী মেলাতে ২২ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। সার্বক্ষণিক মেলার চারদিক নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,665FollowersFollow
402SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles