19.8 C
Rangpur City
Tuesday, December 6, 2022

নুডলস খেতে গিয়ে শিশুর গলায় আটকে গেল সেফটি পিন

-- বিজ্ঞাপন --

মায়ের হাতে নুডলস খেতে গিয়ে সোহানা আক্তার জিদনি (৩) নামে এক শিশুর গলায় সেফটি পিন আটকে গেছে। অসুস্থ অবস্থায় বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) দিবাগত রাত ১২টার দিকে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক। শিশু সোহানা আক্তার জিদনি নাটোরের লালপুর উপজেলার বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের বড়বাগপাড়া এলাকার শফিকুল ইসলামের মেয়ে।

-- বিজ্ঞাপন --

শফিকুল জানান, বুধবার রাত ১২টার দিকে তার মা জুলেখা বেগম নুডুলস খাওয়ানোর সময় ভুলবশত শিশুটির গলায় সেফটিপিন আটকে যায়। তাৎক্ষণিক সে বমি করতে শুরু করে। শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করানো হয়। রাতেই সেখান থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে রেফার্ড করে কর্তব্যরত চিকিৎসক। এক্সরে রিপোর্টে দেখা যায়, শিশুটির খাদ্যনালীতে সেফটিপিন বিধে আছে।

শিশুর বাবা আরও জানান, ওই সেফটিপিন নুডুলসে ছিল না কি অন্য কোনোভাবে খাবারে এসেছিল বিষয়টি তারা নিশ্চিত না।

-- বিজ্ঞাপন --

এ বিষয়ে রামেকের কর্তব্যরত চিকিৎসক নাক-কান-গলা (ইএনটি) রেজিস্ট্রার ডা. নাজমুল হাসান জানান, শিশুটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এখন তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। তবে খাদ্যনালি থেকে সেফটিপিন বের করা সম্ভব হয়নি। সেফটিপিন বের করতে যে যন্ত্র প্রয়োজন সেটি তিন দিন আগে নষ্ট হয়ে গেছে। এ কারণে ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, সেফটিপিন খাদ্যনালীতে আটকানো ঝুঁকিপূর্ণ। এটি বের করতে গিয়ে খাদ্য নালি ছিড়ে যাওয়ার শঙ্কা থাকে।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,607FollowersFollow
769SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles