29.9 C
Rangpur City
Monday, August 15, 2022
Royalti ad

নতুন শিক্ষাক্রমে ধর্মশিক্ষা বাদ দেওয়া হয়নি: ধর্মশিক্ষা ছিল, আছে ও থাকবে

-- বিজ্ঞাপন --

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, নতুন শিক্ষাক্রমে ধর্মশিক্ষা বাদ দেওয়া হয়নি, বাদ দেওয়ার সুযোগ নেই। ধর্মশিক্ষা সব সময় ছিল, এখনো আছে এবং থাকবে।

বুধবার (৬ জুলাই) সচিবালয়ে নতুন বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন।

-- বিজ্ঞাপন --

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘যারা ধর্মশিক্ষা তুলে দেওয়া হয়েছে বলে ধুয়া তুলছেন, তাঁদের উদ্দেশ্য ধর্মকে রক্ষা করা নয়, ধর্মকে অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করে আগামী নির্বাচন সামনে রেখে দেশ অস্থিতিশীল করা। তাই সাধারণ মানুষকে আহ্বান জানাব, এই বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারীদের উপেক্ষা করুন।’

পাঠ্যক্রমে ধর্মীয় শিক্ষা নিয়ে সংসদে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের বক্তব্যের সমালোচনা করে দীপু মনি বলেন, জনপ্রতিনিধি হই বা অন্য যেকোনো দায়িত্বেই থাকি না কেন, দেশের শিক্ষাব্যবস্থা তো আসলে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যেটা প্রত্যেকের সঙ্গে সম্পর্কিত। সে বিষয়ে কথা বলার বা মন্তব্য করার সময় সঠিক তথ্য জেনে নিয়ে কথা বললে ভালো হয়। আর একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তির কাছ থেকে আমাদের চাওয়াটা আরও অনেক বেশি।

-- বিজ্ঞাপন --

তিনি বলেন, আমি তাকে এ কারণে সাধুবাদ জানাতে চাই, তিনি পরে হলেও তথ্য যাচাই করে দেখেছেন এবং ভুল স্বীকার করে সেটি প্রত্যাহারের আবেদন জানিয়েছেন। তবে সারাদেশে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেওয়ার আগে তথ্য যাচাই করে কথা বলা উচিত ছিল। সমাজের একটি অংশ, যারা সবসময়ই কিছুটা হলেও ধর্মের দোহাই দিয়ে নানাভাবে আমাদের এগিয়ে যাওয়ার পথকে রুদ্ধ করার চেষ্টা করে, তারা তার এই বক্তব্যের ভিডিওটি ব্যাপকভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছে। কাজেই তিনি তার বক্তব্যটা যেখানে বলেছেন, সেখানেই শেষ না; যেখানে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন, সেখানেও শেষ না। এর ব্যাপক অপব্যবহার হচ্ছে।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির বিষয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, এটা ঠিক, সংক্রমণ আবার বাড়ছে। সবাইকে অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। ১২ বছরের বেশি বয়সীদের তো টিকা দেওয়া হয়েছে। ১২ বছরের কম বয়সীদের টিকার ব্যবস্থা করা গেলে হয়তো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের প্রয়োজন হবে না।

-- বিজ্ঞাপন --

দীপু মনি বলেন ‘আমরা চাইছি, যতটা সম্ভব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রেখেই সমস্যাগুলোর সমাধানে যাব। কাজেই এ মুহূর্তে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা ভাবছি না। সচেতনতা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছি। তবে এটাও বলব, সবকিছু নির্ভর করবে পরিস্থিতির ওপর।’

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,637FollowersFollow
501SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles