20.1 C
Rangpur City
Tuesday, January 31, 2023

দেশে লাইভ পর্ন সাইট পরিচালনার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৬

-- বিজ্ঞাপন --

পুলিশ বলছে, দেশে ১২০ জন এজেন্টের মাধ্যমে দুই বছর ধরে একটি লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট পরিচালনা করছিল একটি চক্র। অনুমোদনহীন ভার্চুয়াল ডায়মন্ড ও ভার্চুয়াল গেম কয়েন ব্যবহার করে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে তারা।

-- বিজ্ঞাপন --

অনলাইনে লাইভ ভিডিও প্লাটফর্মে পর্নোগ্রাফি এবং বিপুল পরিমাণ অর্থ লেনদেন ও পাচারের অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

-- বিজ্ঞাপন --

বুধবার রাতে ঢাকা, সিলেট, নোয়াখালী, মুন্সীগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তারের কথা জানান কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) প্রধান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান।গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- আবু মুসা ইমরান আহমেদ সানি, মো. আবু শামা, ফাতেমা আক্তার, শায়লা আক্তার, শাহ আরমান ও মো. সেলিম।তাদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিন্টো রোডে সংবাদ সম্মেলনে সিটিটিসি প্রধান আসাদুজ্জামান জানান, এই চক্রের হোতা আবু মুসা ইমরান। গত তিন মাসে চক্রটি প্রায় ৩০ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেন করেছে।বুধবার রাতে ঢাকা, সিলেট, নোয়াখালী, মুন্সীগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তারের কথা জানান কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) প্রধান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান।গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- আবু মুসা ইমরান আহমেদ সানি, মো. আবু শামা, ফাতেমা আক্তার, শায়লা আক্তার, শাহ আরমান ও মো. সেলিম।তাদের জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিন্টো রোডে সংবাদ সম্মেলনে সিটিটিসি প্রধান আসাদুজ্জামান জানান, এই চক্রের হোতা আবু মুসা ইমরান। গত তিন মাসে চক্রটি প্রায় ৩০ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেন করেছে।

-- বিজ্ঞাপন --

তিনি বলেন, “অনলাইন প্লাটফর্মে অপরাধ প্রবণতা নিরসনে কাউন্টার টেরোরিজমের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ নিয়মিত তদারকি করে একটি আন্তর্জাতিক ভিডিও লাইভ প্লাটফর্ম সম্পর্কে জানতে পারে। পরে ব্যাপক অনুসন্ধান ও তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে বাংলাদেশে ওই প্লাটফর্মের হোতা আবু মুসা ইমরান আহমেদ সানি ও তার সহযোগীদের শনাক্ত করা হয়।”দেশে ১২০ জন এজেন্টের মাধ্যমে আবু মুসা ইমরান ২০২০ সাল থেকে ওই লাইভ স্ট্রিমিং সাইট পরিচালনা করে আসছে জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, মধ্যপ্রাচ্যেও তাদের ৩০ জনের বেশি এজেন্ট রয়েছে। বাংলাদেশে অনুমোদনহীন ভার্চুয়াল ডায়মন্ড ও ভার্চুয়াল গেম কয়েন ব্যবহার করে অবৈধ প্রক্রিয়ায় বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।সিটিটিসি প্রধান আসাদুজ্জামান বলেন, “আবু মুসা ইমরান আহমেদ সানির ব্যাংক ও মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট পর্যালোচনায় গত তিন মাসে প্রায় ৩০ কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনের তথ্য পাওয়া যায়। অবৈধ ই-ট্রানজেকশনের মাধ্যমে উপার্জিত টাকা তারা হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশে পাচার করেছেন।”

লাইভ পর্ন প্লাটফর্ম ব্যবহার করে অর্থ উপার্জন ও পাচারের বিষয়টি পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে বলে জানান পুলিশের বিশেষ ইউনিটের এই কর্মকর্তা।গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, বিভিন্ন ব্যাংকের চেকবই, ডেভিড ও ক্রেডিট কার্ড উদ্ধারের কথা জানিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানীর রমনা থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,602FollowersFollow
854SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles