21.8 C
Rangpur City
Saturday, May 21, 2022
Royalti ad

দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশনে চালকের ইচ্ছায় থামছে ট্রেন, যাত্রীরা দুর্ভোগে

-- বিজ্ঞাপন --Royalti ad

ব্রিটিশ আমলে নির্মিত দেশের প্রাচীনতম দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশনটিকে আবারও জনবল-সংকটের কারণ দেখিয়ে ক্লোজিং ডাউন (কার্যক্রম বন্ধ) ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। এতে সব ট্রেন প্ল্যাটফর্মের ১ নম্বর লাইনে না দাঁড়িয়ে ২ নম্বরে দাঁড়াচ্ছে। এতে ঝুঁকি নিয়ে ট্রেনে উঠতে হচ্ছে যাত্রীদের। লাইন থেকে ট্রেন অনেক উঁচু হওয়ায় ট্রেনে ওঠা-নামা করতে যেকোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

সোমবার (৪ এপ্রিল) সকাল ১০টায় হিলি রেলওয়ে স্টেশনে সরেজমিনে দেখা যায়, স্টেশনের কার্যক্রম ‘ক্লোজিং ডাউন’ ঘোষণার পর থেকে এই স্টেশনে স্টপেজ থাকা ট্রেনগুলো চালকের নিজ ইচ্ছায় স্টেশনে ২ নম্বর লাইনে থামানো হচ্ছে। নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে পার্শ্ববর্তী বিরামপুর ও পাঁচবিবি রেলস্টেশন থেকে।

-- বিজ্ঞাপন --

আরও দেখা যায়, রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা চিলাহাটিগামী তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনটি নিজের ইচ্ছায় ২ নম্বর লাইনে দাঁড়িয়েছে। এ সময় ট্রেনটিতে থাকা যাত্রীরা ঝুঁকি নিয়ে ঝুলে ঝুলে স্টেশনে নামছে। অন্যদিকে এই স্টেশন থেকে চিলাহাটিগামী যাত্রীদের অনেক কষ্ট করে ট্রেনে উঠতে দেখা গিয়েছে। কোনো ধরনের সিগন্যাল ছাড়াই চালকের ইচ্ছায় ট্রেন চলাচলের কারণে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

হিলি রেলস্টেশনের বুকিং সহকারী নয়ন বাবু বলেন, জনবল-সংকটের কারণে হিলি রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশনমাস্টার ও পয়েন্টম্যানকে অন্য জায়গায় বদলি করা হয়েছে। এতে এই পথ দিয়ে চলাচলরত সব ট্রেন থ্রু পাস হয়ে যাবে। যে কটি ট্রেনের স্টপেজ আছে, সে ট্রেনগুলো প্ল্যাটফর্মে না দাঁড়িয়ে চালকের ইচ্ছায় ২ নং লাইনে দাঁড়াচ্ছে, সেখান থেকে যাত্রী নিয়ে স্টেশন ছেড়ে চলে যাচ্ছে। স্টেশনে ট্রেনের টিকিট বিক্রি কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে।

-- বিজ্ঞাপন --

রাজশাহী থেকে হিলি রেলওয়ে স্টেশনে আসা নাদিয়া আক্তার নামের এক যাত্রী বলেন, আমরা যারা মহিলা মানুষ ট্রেনে যাতায়াত করি, আমাদের জন্য খুবই কষ্ট হচ্ছে। ট্রেন ২ নাম্বার লাইনে দাঁড়াল আমি নামতে গিয়ে ব্যথা পাইছি। সরকারের কাছে অনুরোধ, ট্রেন যেন ১ নাম্বার লাইনে দাঁড়ায়। তাতে আমাদের সুবিধা হবে।

রকিবুল ইসলামের নামের একজন যাত্রী বলেন, আমি রাজশাহী রেলস্টেশনে টিকিট কেটে হিলিতে এলাম। ওখানে ট্রেনে উঠতে কোনো সমস্যায় আমাকে পড়তে হয়নি কিন্তু হিলিতে আসার পর ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে আমাকে ভোগান্তি পোহাতে হলো। আমি নামব নাকি ব্যাগগুলান নামাব, এটা করতে খুব কষ্ট হলো।

-- বিজ্ঞাপন --Bicon Icon

হাকিমপুর পৌরসভার মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত বলেন, গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহ্যবাহী রেলস্টেশনের মধ্যে হিলি রেলস্টেশন একটি। এটা ব্রিটিশ আমলে নির্মিত। এখানে হিলি স্থলবন্দরসহ হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট থাকায় ব্যবসার কাজে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ব্যবসায়ীরা আসেন। পাশাপাশি চিকিৎসা নেওয়ার জন্য রোগীরা যাতায়াত করে।

এখানে দুটি আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে একটি যাওয়ার সময় থামে, আসার সময় থামে একটি মেইল ট্রেন। তা ছাড়া কোনো ট্রেন থামে না। স্থানীয়রা দীর্ঘদিন ধরে এখানে অন্যান্য ট্রেনের স্টপেজসহ স্টেশনটির আধুনিকায়নের দাবি জানিয়ে আসছিলাম। কিন্তু এর মধ্যেই ক্লোজিং ডাউন ঘোষণা করে স্টেশনটির কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে আমরা চরম বিপাকে পড়ে গেলাম। আমরা চাই অচিরেই এ স্টেশনের কার্যক্রম আবার স্বাভাবিক করা হোক।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,666FollowersFollow
397SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles