24.2 C
Rangpur City
Thursday, December 8, 2022

দক্ষিনের আনন্দ দুয়ারের ঢেউ লেগেছে উত্তরের রংপুরেও

-- বিজ্ঞাপন --

দেশের দক্ষিন অঞ্চলের আনন্দ দুয়ারের ঢেউ লেগেছে উত্তরের রংপুরেও। পদ্মা বহুমুখি সেতুর উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে ইতিহাসের সাক্ষি হয়েছেন বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ।

শনিবার (২৫ জুন) সকালে রংপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্থানীয় টাউনহল মাঠ থেকে বিভিন্ন রঙের টি শার্ট পরে ঢাক, ঢোল, সানাই বাজিয়ে একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা নগরী প্রদক্ষিন করে। করা হয় মিষ্টি বিতরন। একে অপরকে মিষ্টি খাইয়ে দিয়ে শোভাযাত্রা পারি দেয় জিলা স্কুল মাঠ। সেখানে সমাবেত হয়ে বড় স্ক্রিনে সেতুটি উদ্বোধনের ক্ষণটি স্মরণীয় করে রাখতে জরো হয় মানুষ।

-- বিজ্ঞাপন --

এ সময় উপস্থিত ছিলেন-বিভাগীয় কমিশনার আবদুল ওয়াহাব ভুঞা, রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহা: আবদুল আলীম মাহমুদ, জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, মাহনগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাফিউর রহমান সফি, সাধারন সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডলসহ দলের সহযোগি সংগঠানের নেতাকর্মীরা এবং বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দরা।

আলোকসজ্জিত করা হয়েছে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও ভবন। সাত রঙের পতাকা দিয়ে সাজানো হয়েছে সড়ক-মহাসড়কসহ গ্রামীন জনপদে ইউনিয়ন পরিষদকেও। আয়োজন করা হয়েছে সেতুকে ঘিরে নানা রকম প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আতোসবাজী।

-- বিজ্ঞাপন --

এছাড়াও মেট্রোপলিটন পুলিশ, মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগসহ ছাত্রলীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ আলাদাভাবে আনন্দ র‌্যালী করে। র‌্যালী হয়েছে, বেগম রোকেয়া কলেজ, কারমাইকেল কলেজ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়সহ অর্ধশত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। একই চিত্র রংপুরের আট উপজেলায়। সেখানে আওয়ামী লীগসহ সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান নানা আয়োজন করেছে।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের পদ্মা বিজয়ের অনুভূতি প্রকাশ করে রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার আবদুল ওয়াহাব ভূঞা বলেন, বাঙালি এবং বাংলাদেশকে দাবিয়ে রাখা যাবে না; সেই কথার সার্থকতা প্রমাণ করেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতু শুধু সেতুই নয়, এটি একটি স্বপ্নের সফল ও বিস্ময়কর বাস্তবায়ন। প্রধানমন্ত্রী দেখিয়ে দিয়েছেন বাঙালি সব কাজই পারে। বাংলাদেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নেওয়ার শক্তি এই সেতু। আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবো, এটাও এখন খুবই সম্ভব। আমাদের এগিয়ে যাওয়ার সাহস, স্বপ্ন ও অনুপ্রেরণার উৎস প্রধানমন্ত্রী এবং বিশ্বকে তাক লাগানো নবস্থাপনা পদ্মা সেতু।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,607FollowersFollow
768SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles