21.7 C
Rangpur City
Tuesday, November 29, 2022

ড্রামের ভেলাই ভরসা দুই গ্রামের বাসিন্দার

-- বিজ্ঞাপন --

এস এম রাফি চিলমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের চিলমারীর দুর্গম চরের এক এলাকায় বন্যার পানি নেমে যেতে সড়কের কিছু অংশ কেটে দেয় স্থানীয়রা। কিন্তু সেটাই এখন দীর্ঘ ২৫ বছর থেকে দুই গ্রামের মানুষের চলাচলে বড় অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমন দুর্ভোগ দেখে সম্প্রতি পাঁচমাস আগে ড্রামের ভেলা করে দেন উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন কমিটির সদস্য জাহিদ আনোয়ার পলাশ। তবে বিগত ২৪ বছর থেকে বন্যা ও বর্ষা মৌসুমে ছোট ডিঙি নৌকা দিয়ে পারাপার হতেন স্থানীয়রা। এই দীর্ঘ সময়ে চোখে পড়েনি কিংবা আমলে নেয়নি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। নিবার্চন এলেই শুধু আশ্বাসই দিয়েছেন এমন অভিযোগ ওই এলাকার বাসিন্দাদের। এদিকে সরেজমিন পরিদর্শন শেষে মাটি ভরাট করে ব্রীজ করার কথা জানিয়েছেন প্রশাসন। তবে কি আদৌউ বাস্তবায়ন হবে এমন সঙ্খা দেখা গেছে ওই এলাকার লোকজনের মাঝে।
উপজেলার অষ্টমীর চর ইউনিয়নের ডাটিয়ার চর (৬নং ওর্য়াড) এলাকায় রাস্তা সহ ব্রীজের অভাবে ২৫ বছর থেকে দুই গ্রামের হাজারও মানুষের চলাচলের দেখা দিয়েছে দুভোর্গ। শুকনো মৌসুমে পায়ে হেঁটে গেলেও ঘোড়ার গাড়ি চলাচলে পোহাতে হয় ভোগান্তি। তবে বন্যা ও বর্ষা মৌসুমে চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হয়ে দাঁড়ায় ডিঙি নৌকা। বর্তমানে ড্রামের ভেলাই চলাচল করছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। যাতায়াত করতে ব্যাপক সমস্যার সম্মুখিন হয়েছেন ওই এলাকার শিক্ষার্থীরা । স্থানীয়রা বলছেন দ্রুত এই সমস্যার সমাধান যেনো হয়।
দক্ষিণ নটারকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মেরিনা, মিদুল, মহিবুল ও জেমি বলেন, আমাদের প্রতিদিন এই ড্রামের ভেলায় করে পাড় হয়ে স্কুলে যেতে হয়। ভেলায় উঠতে ভয় হয় । এখন আমাদের রাস্তা করে দিলে ভালো হবে।
ওই এলাকার বাসিন্দা সোলাইমান বলেন, ২৫ বছর থেকে এখানে রাস্তা নাই আমরা চলাচল করতে পারি না ঠিকভাবে। বৃষ্টির সময়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হয় চলাচল করতে। সামনে বাজার কিন্তু ভারী জিনিস নিয়ে আসতে কষ্ট হয়।
চাঁন মিয়া অভিযোগ করে বলেন, এখানে নির্বাচন আসলে সবাই রাস্তা ঘাট ঠিক করে দিতে চায় । কিন্তু নিবার্চন শেষ হলে আমাদের আর খোঁজও নেন না কেউ। কিছু দিন আগে এক জন আসি ড্রামের ভেলা করে দিছে। এখন একটু পারাপার হওয়া যায়।
ইউএনও স্যার আসছিলো এখানে ব্রীজ করে দিতে চাইছে কিন্তু সেই ব্রীজ কবে পাবো বলে সঙ্খায় আছেন, বলে জানিয়েছেন সানাউল নামে ওই এলাকার বাসিন্দা।
উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন কমিটির সদস্য জাহিদ আনোয়ার পলাশ জানান, ওই এলাকার সমস্যা টা অনেক দিনের । কিন্তু জনপ্রতিনিধিরা কেনো কাজটি করছেন না সেটা বুঝে আসে না । পরে আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে ওই এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে পারাপারে জন্য আপাতত একটি ড্রামের ভেলা করে দিয়েছি। এখন মোটামুটি লোকজন পারাপার হচ্ছে। তবে ওখানে স্থায়ী ভাবে ব্রীজ কিংবা রাস্তা হলে এই সমস্যা থাকবে না বলে তিনি যোগ করেন।
অষ্টমীরচর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন বলেন, আমি ডাটিয়ার চরের ওই রাস্তার ব্যাপারে ইউএনও স্যার সহ বিভিন্ন দপ্তরে কথা বলেছি।
এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, আমি জায়গাটি সরেজমিন পরির্দশন করেছি। ওখানে একটি ব্রীজ করে দিলে স্থায়ীভাবে সমস্যার সমাধান হবে। আমরা চেষ্টা করছি খুব দ্রুত রাস্তা সহ ব্রীজ করে দেয়ার।

এস এম রাফি

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,610FollowersFollow
752SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles