25.7 C
Rangpur City
Monday, August 15, 2022
Royalti ad

চলন্ত বাস জি‌ম্মি ক‌রে ডাকাতি-ধর্ষণের মূলহোতা গ্রেফতার

-- বিজ্ঞাপন --

টাঙ্গাইলের মধুপুরে একটি নৈশ্য কোচে যাত্রীবেশে ডাকাতি ও এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনার মূলহোতা রাজা মিয়াকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) ভোরে টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

টাঙ্গাইলের জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সরকার মোহাম্মদ কায়সার গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

-- বিজ্ঞাপন --

রাজা মিয়া কালিহাতী উপজেলার বল্লা গ্রামের হারুন অর রশিদের ছেলে। তিনি টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ভাড়া থেকে টাঙ্গাইল-ঢাকা সড়কে ঝটিকা বাসের চালক ছিলেন।

জেলা গো‌য়েন্দা পু‌লি‌শের উত্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ও‌সি) মোহাম্মদ হেলাল উ‌দ্দিন বলেন, গোপন সংবা‌দের ভি‌ত্তি‌তে টাঙ্গাইল সদর এলাকায় অ‌ভিযান চা‌লি‌য়ে রাজা মিয়া‌কে গ্রেপ্তার করা হ‌য়েছে। প্রাথ‌মিক জিজ্ঞাসাবা‌দে সে চলন্ত বা‌সে ডাকা‌তি করার ঘটনা স্বীকার ক‌রে‌ছে।

-- বিজ্ঞাপন --

রাজা মিয়া জা‌নি‌য়েছে, তারা ১০ জন মি‌লে ওই বাস জি‌ম্মি ক‌রে চলন্ত অবস্থায় যাত্রী‌দের কাছ থে‌কে সব কিছু ডাকা‌তি ক‌রে‌ছে। এছাড়া বা‌সে থাকা এক নারী‌কে তার সহ‌যো‌গীরা ধর্ষণ ক‌রে‌ছে।

বৃহস্পতিবার দুপু‌রে সাংবা‌দিক‌দের টাঙ্গাইল জেলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার বলেন, ঈগল পরিবহনের যে বাসটি ডাকাতরা জি‌ম্মি ক‌রে‌ছিল, সেই বাসের চালককে সরিয়ে দিয়ে রাজা চালকের সিট দখল করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে সব কিছু স্বীকার ক‌রে‌ছে।

-- বিজ্ঞাপন --

তিনি আ‌রও বলেন, মধুপুরে বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান শুরু করে পুলিশ। ভোরে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী নৈশ্য কোচটিতে যাত্রীবেশে ওঠে প্রথমে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ নেন ডাকাতদলের সদস্যরা। পরে যাত্রীদের হাত-পা-চোখ বেঁধে মারধর ও সম্পদ লুটপাট চালান। এসময় বাসে থাকা এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণ ও এরপর রুট পাল্টে রাত সাড়ে ৩টার দিকে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মধুপুরের রক্তিপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় রাস্তার পাশের বালির ঢিবিতে পরিবহনটি উল্টে দিয়ে পালিয়ে যান ডাকাতরা। আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ওই সদস্যরা টানা তিন ঘণ্টা যাত্রীদের ওপর এমন ভয়াবহ অত্যাচার চালায় বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে বুধবার সকালে মধুপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। ওই বাস থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের কথা স্বীকার করেছেন মধুপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এনামুল হক।

এ ঘটনায় বাসটিতে থাকা কুষ্টিয়ার এক যাত্রী বাদী হয়ে অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

-- বিজ্ঞাপন --

Related Articles

Stay Connected

82,917FansLike
1,637FollowersFollow
501SubscribersSubscribe
-- বিজ্ঞাপন --

Latest Articles